Breaking News

‘ভাবছি সেই ৮০টি সিম নিলামে তুলব’- নাসির

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন নাসির হোসেন। ইনিংসের শেষ দিকে কার্যকর ব্যাটিং, দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ের মাঝে কখনো বোলিংয়েও সাফল্য এনে দিতেন দলকে। নামের পাশে মি. ফিনিশার খ্যাতি জোড়ার পরও এ তারকা চলে গেছেন দলছুটদের কাতারে। জড়িয়েছেন নানা শৃঙ্খলা বিরোধী কাজে, সঙ্গে ছিল ফর্মহীনতা।

মাঝে আবার হয়েছিল পায়ের ইনজুরি। এসব কারণে দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলে ডাক পাচ্ছেন না নাসির হোসেন। ২০১৬ সালের দিকে যখন জাতীয় দল থেকে যখন বাদ পড়লেন, তখন গুজব ছড়িয়ে যায়, নাসির হোসেনের জীবনে কোন শৃঙ্খলা নেই। তারকাখ্যাতি তাকে পেয়ে বসেছে। ব্যক্তিগত ১২টি মোবাইল ফোন এবং ৮০টি সিম ব্যবহার করেন তরুণ তারকা ক্রিকেটার।

রোববার রাতে এক ফেসবুক লাইভ আড্ডায় মি. ফিনিশার খ্যাত এ তারকা ক্রিকেটার মুখ খোলেন এ ব্যাপারে। উপস্থাপকের এক প্রশ্নে মজা করে জানান ৮০টা সিম কার্ড তিনি নিলামে তুলতে চান।

নাসির বলেন, ভাবছি আমার ৮০টি সিম নিলামে উঠবে। যেসব নম্বরগুলো ভালো, সেগুলা একটু দামি আর কি (হাসি)। এগুলো মানুষজন বলে, আমাদের সংস্কৃতিটাই এরকম। আপনি যদি সুস্থ মানুষ হন তাহলে কিভাবে চিন্তা করেন, যে একটা মানুষ ৮০টি সিম ব্যবহার করে। এটা অসম্ভব কথা। ওই যে বললাম কিছু গরিব ইউটিউবার আছে যারা আমার নাম বিক্রি করে টাকা কামাই করছে।

তিনি বলেন, ‘আমাকে নিয়ে যেটা হয়েছে মানুষ আমাকে নিয়ে বেশি গসিপ করা শুরু করেছে। আমি যদি তিল করি মানুষ এটাকে তাল বানায়। কিছু কিছু ইউটিউবার আছে আমার নাম বেঁচে তারা টাকা কামাই করছে। কিছু হইলেই তারা এমনভাবে নিউজ করে, কী না কী হয়ে গেছে। আল্লাহ সবাইকে হেদায়েত দিক।’

আরও যোগ করেন, ‘এমন এমন নিউজ করে, যেটা অযোক্তিক নিউজ। মানুষের চিন্তায়ও আসে না এমন নিউজ করে বসে আছে। কিছু হলেই এ কি করলেন নাসির হোসেন! অথচ ভেতরে ঢুকে দেখবেন কিছুই নাই।’

উল্লেখ্য বাংলাদেশের জার্সি গায়ে নাসির হোসেনের ওয়ানডেতে অভিষেক হয় ২০১১ সালের আগস্টে। একই বছরের অক্টোবরে অভিষেক হয় টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে। সর্বশেষ খেলেছেন ২০১৮ সালের জানুয়ারিয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। তিনি এখন পর্যন্ত ১৯ টেস্টে ৪৪২, ৬৫ ওয়ানডেতে ৯৮৮ ও ৩১ টি-টোয়েন্টিতে ২৬২ রান করেছেন।

সময়েরকন্ঠস্বর/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *