Breaking News

jsc jdc result 2018

২০১৮ সালের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফল ২৪ ডিসেম্বর প্রকাশ হয়েছে। এবার জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮৫ দশমিক ৮৩ শতাংশ।
আজ বেলা ১০টার পর গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলাফল হস্তান্তরের পর সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত তুলে ধরবেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে সহজে জানা যাবে ২০১৮ সালের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল…

অনলাইনে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৮ পাওয়া যাবে এখানেঃ

 

অনলাইনে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল জানার বিকল্প পদ্ধতি

অনলাইনে শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট www.educationboardresults.gov.bd এ দেশের সকল বোর্ড এর ফলাফল একযোগে প্রকাশ করে থাকে। কিন্তু ওইদিন সারা দেশ থেকে একযোগে ঐ সাইটে চেস্টা করার ফলে অনলাইনে ফলাফল জানা অনেক কস্টসাধ্য হয়ে পড়ে। তাই স্বাভাবিক ভাবেই সবার বিকল্প পদ্ধতি খোঁজার প্রয়োজন হয়ে পড়ে। আপনারা অনেকেরই হয়তো জানা নেই ঐ ওয়েবসাইটের পাশাপাশি কিছু কিছু শিক্ষা বোর্ড তাঁদের নিজস্ব সাইটেও ফলাফল প্রকাশ করে থাকে। সেখান থেকে অপেক্ষাকৃত সহজে ফলাফল জানা যায়। আপনাদের সুবিধার্থে যে সকল বোর্ড আলাদা করে ফলাফল প্রকাশ করবে তাদের ফলাফল দেখার লিঙ্ক নিচে দেওয়া হলোঃ

JSC Result 2018

জেএসসি ও জেডিসি বৃত্তির ফলাফল দেখুন এখান থেকে

মোবাইলে এস এম এস এর মাধ্যমে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৮ জানার পদ্ধতিঃ

➳যে কোন মোবাইল অপারেটর এর মেসেজ অপশন এ গিয়ে লিখতে হবে JSC অথবা JDC

➳এরপর একটি স্পেস দিয়ে আপনার বোর্ড এর প্রথম তিন টি অক্ষর লিখতে হবে। যেমনঃ

DHA = Dhaka Board | COM = Comilla Board | RAJ = Rajshahi Board | JES = Jessore Board | CHI= Chittagong Board | BAR = Barisal Board | SYL = Sylhet Board | DIN = Dinajpur Board | MAD = Madrassah Board | TEC= Technical Board

➳ এরপর, একটি স্পেস দিন এবং আপনার রোল নম্বরটি লিখুন।

➳ এবার একটি স্পেস দিয়ে আপনার পরীক্ষার সাল অর্থাৎ 2016 লিখুন।

➳ Example: JSC <স্পেস>JES <স্পেস>123456 <স্পেস>2016

মাদ্রাসা বোর্ড এর ক্ষেত্রেঃ JDC<স্পেস>MAD<স্পেস>123467<স্পেস>2016

➳ এবার মেসেজ টি পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণ এর পদ্ধতি জানতে এখানে ক্লিক করুন

জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার পরিসংখ্যানঃ

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা গত ১ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১৫ নভেম্বর শেষ হয়। নির্ধারিত দিনগুলোতে সকাল ১০টা ও বিকাল ২টা থেকে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

সারাদেশে এবার উভয় পরীক্ষায় ২৬ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। আট বোর্ডের অধীনে জেএসসিতে ২২ লাখ ৬৭ হাজার ৩৪৩ জন এবং মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে জেডিসিতে ৪ লাখ ২ হাজার ৯৯০ জন পরীক্ষা দেয়।

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় আটটি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডের গড় পাসের হার ৮৫ দশমিক ২৮ শতাংশ। আর মাদরাসার জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষায় পাসের হার ৮৯ দশমিক ০৪ শতাংশ। ২০১৮ সালে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮৫ দশমিক ৮৩ শতাংশ। জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮ হাজার ৯৫ জন পরীক্ষার্থী।

শতভাগ পাসের প্রতিষ্ঠান ৪,৭৬৯টি। এছাড়া মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৮৯ দশমিক ৪ শতাংশ। জেএসসি ও জেডিসিতে মোট পাস করেছে ২২ লাখ ৩০ হাজার ৮২৯ জন পরীক্ষার্থী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *